চাঁদাবাজি নিয়ে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ; নিহত ১, আহত ২৫

আওয়ামী নির্যাতন, আওয়ামীলীগ

সুনামগঞ্জের ছাতকে সুরমা নদীতে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে শ্রমিক লীগের এক কর্মী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে পুলিশসহ অন্তত ২৫ জন।

মঙ্গলবার রাত পৌনে ১০টা থেকে পৌনে ১১ টা পর্যন্ত উপজেলা সদরের বাসস্টেশন রোডে ঘণ্টাব্যাপি এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সুরমা নদীর চাঁদাবাজি নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কালাম চৌধুরীর সাথে বিরোধ তারই ছোট ভাই একই দলের সমর্থক শামীম আহমেদ চৌধুরীর। এরই জের ধরে মঙ্গলবার রাতে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দু’পক্ষের সমর্থকরা। চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। পরে টিয়ার শেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে সাহাব উদ্দিনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

এ সংঘর্ষ থামাতে কাঁদুনে গ্যাস ও কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়তে হয়েছে বলে জানায় ছাতক থানা পুলিশ

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফা কামাল জানান, সংঘর্ষে আমিসহ ৭/৮ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছি। টিআর সেল ও শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে।

যমুনা অনলাইন